বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ১০১তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন

১৭ই মার্চ ২০২১ বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যায়ের কাজলা ভবনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিনটি উদযাপন করা হয়। তারমধ্যে ছিল জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর উপর আলোচনা, সঙ্গীতপরিবেশন, কবিতা আবৃতি, কেক কাটা ও সুবিধা বঞ্চিত শিশুদেও মধ্যে খাবার ও বস্ত্র বিতরণ। 
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্যে দিয়ে এই অনুষ্ঠান শুরু হয়। এরপর সুবিধা বঞ্চিত শিশুদেও মধ্যে নতুন বস্ত্র ও খাবার বিতরণ করা হয় এবং কেক কাটার আয়োজন করা হয়। এই সময় উপস্থিত ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যায়ের সম্মানিত রেজিস্ট্রার ড. মো. মহিউদ্দীন, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সম্মানিত প্রধান ড. মো. ফয়জার রহমান, প্লানিংঅ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের সহকারী পরিচালক জনাব সিরাজুর রহমান সহ বিভাগের বিভিন্ন শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ। উক্ত অনুষ্ঠানে সর্বাত্মক সহযোগিতা করে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যায়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ছোট্টসপ্ন।
এরপর বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যায়ের সম্মানিত ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর ড. মোখলেসুর রহমানের সভাপতিত্বে অনলাইন আলোচনায় প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যায়ের মাননীয় উপদেষ্টা প্রফেসর ড.  এম. সাইদুর রহমান খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যায়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এম. ওসমান গণি তালুকদার, ভারপ্রাপ্ত উপ-উপাচার্য প্রফেসর শহিদুর রহমান। যুক্ত ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যায়ের সম্মানিত রেজিস্ট্রার ড. মো. মহিউদ্দীন, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সম্মানিত প্রধান ড. মো. ফয়জার রহমান, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. শহিদ উজ জামান, দিবস উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক ও ইংরেজী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ আকরাম হোসেন সহ বিভিন্ন বিভাগের প্রধান, কো-অর্ডিনেটর, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জীবনকর্মের উপর আলোকপাত করে বক্তব্য প্রদান করেন। প্রফেসর ড. ফয়জার রহমান জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবনের সফলতা ও জনপ্রিয়তা নিয়ে আলোচনা করেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জীবন নিয়ে প্রফেসর ড. এম. সাইদুর রহমান খান তার বক্তব্যে বলেন “বঙ্গবন্ধুর মত নেতা আমরা পেয়েছিলাম বলে আজ আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি”।
আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধুর স্মরনে সঙ্গীত পরিবেশন, নৃত্য ও কবিতা আবৃতি করা হয়।

© Copyright 2021 Varendra University | Developed by IT Office, Varendra University.