Varendra University

স্টার্টআপ নিয়ে ক্যারিয়ার গঠন বিষয়ে সিএসই ডিপার্টমেন্টে ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত

চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের এই সময়ে সবচেয়ে আলোচিত বিষয়টি হল স্টার্টআপ। ধারণা করা হচ্ছে বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে আমাদের দেশেও খুব শীঘ্রই স্টার্টআপ কালচারের একটা ঝড় আসতে চলেছে।
যেখানে হাজারো স্টার্টআপের মধ্যে শুধুমাত্র  অল্প কিছুসংখ্যক স্টার্টআপই লড়াই করে টিকে থাকতে পারবে।

স্টার্টআপ শব্দটি আমাদের কাছে নতুন ব্যবসা হিসেবে পরিচিত হলেও এটি আসলে নতুন উদ্দ্যোক্তা এবং হাজারো কর্মসংস্থান তৈরির একটি উপযুক্ত মাধ্যম। প্রযুক্তিখাতে যা অভাবনীয় সুযোগ সৃষ্টি করতে পারে।

শিক্ষার্থীদের তাই এখন থেকেই স্টার্টআপ কালচার সম্পর্কে পরিচয় করিয়ে দিতে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই ডিপার্টমেন্টের পক্ষ থেকে আয়োজন করা হয় "Career Talk on Startup" শীর্ষক ওয়েবিনার।

গত ২২ নভেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় জুম প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত এই ওয়েবিনারে প্রধান বক্তা হিসেবে ছিলেন Pathao এর কো-ফাউন্ডার ও সিটিও,  শিফাত আদনান।
এবং প্রধান অতিথি ছিলেন - প্রফেসর ডঃ আশিক মোশাদ্দিক, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়। 
যেখানে উপস্থাপনা করেন অত্র ডিপার্টমেন্টের ষষ্ঠ সেমিস্টারের শিক্ষার্থী সুমাইয়া হান্নান।


ওয়েবিনারে শুরুতে ইঞ্জিনিয়ারিং ফ্যাকাল্টির ডিন এবং সিএসই ডিপার্টমেন্টের প্রধান প্রফেসর ডঃ মোঃ শহিদ উজ জামান প্রধান বক্তার সাথে সকলের পরিচয় করিয়ে দেওয়ার মাধ্যমে মূল আলোচনার সূচনা করেন।

পুরো ওয়েবিনারটিকে দুটি অংশে ভাগ করে নিয়ে প্রধান বক্তা, শিফাত আদনান আলোচনার শুরুতে তার স্টার্টআপ ক্যারিয়ার এবং পরামর্শগুলো তুলে ধরেন এবং পরবর্তী প্রশ্নোত্তর পর্বে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

দেশের অন্যতম জনপ্রিয় রাইড শেয়ারিং প্লাটফর্ম পাঠাও বর্তমানে এটির কার্যপরিধি আরো বিস্তর করেছে। তবে এর শুরুটা এত সহজ ছিল না, এমনটিই জানান শিফাত আদনান।
পরিকল্পিত টিম ওয়ার্ক, ভুল থেকে শিক্ষা নেওয়া, দেশের বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সমাধান চিন্তা করে রিস্ক সামনে রেখেই নিজেদের স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করাসহ ছাত্র জীবনের অন্যান্য অভিজ্ঞতাগুলোও প্রধান বক্তা এই ওয়েবিনারে তুলে ধরেন।
গড়ে দশটি স্টার্টআপের মধ্যে নয়টিই যেসব কারণে শেষ পর্যন্ত টিকে থাকতে পারে না আলোচনা হয় এসব বিষয়েও।

প্রশ্নোত্তর পর্বে কৌতুহলী শিক্ষার্থীরা চমৎকার সব প্রশ্নের মাধ্যমে তাদের মনের সংকোচগুলো দূর করে নেয়, নতুন অনেক বিষয়ে শিক্ষা নেয় এবং স্টার্টআপ ক্যারিয়ার গঠনের বিভিন্ন পরামর্শ গ্রহণ করে।

অসংখ্য আগ্রহী শিক্ষার্থী এবং ডিপার্টমেন্টের ফ্যাকাল্টি মেম্বারদের অংশগ্রহণে বেশ গোছানো এই ওয়েবিনার পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন সিএসই ডিপার্টমেন্টের লেকচারার রাফি ইবনে সুলতান এবং মোহাম্মদ কাসেদুল্লাহ্।


ওয়েবিনারের শেষ পর্যায়ে এসে সিএসই ডিপার্টমেন্টের প্রধান প্রফেসর ডঃ মোঃ শহিদ উজ জামান প্রধান অতিথির পক্ষ থেকে প্রধান বক্তাকে ধন্যবাদ জানান।

অন্যদিকে আমাদের বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য Pathao এর পক্ষ থেকে কোন শিক্ষামূলক কার্যক্রম, ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্রেনিং বা ইন্টার্নশিপের সুবিধা এবং পাঠাও এ চাকরির সুযোগ সম্পর্কেও জানতে চাইলে প্রধান বক্তা শিফাত আদনানের পক্ষ থেকেও ইতিবাচক উত্তর পাওয়া যায়।

যা ভবিষ্যতে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য সত্যিই এক দারুণ সুযোগ হতে পারে।