Varendra University

উপমহাদেশের প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক স্যারের স্মরণে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ছোট্ট স্বপ্নের উদ্যোগে শোক সভা

উপমহাদেশের প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক স্যারের স্মরণে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ছোট্ট স্বপ্নের উদ্যোগে শোক সভার আয়োজন করা হয়। সভায় স্যারের বর্ণাঢ্য জীবন পরিচিতি তুলে ধরা হয়। শোক সভায় উপস্থিত ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর ড. আশিক মোসাদ্দিক, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এবং রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. মো হাবিবুল্লাহ, উপস্থিত ছিলেন হাসান আজিজুল হক স্যারের কৃতি সন্তান ড. ইমতিয়াজ হাসান, সহযোগী অধ্যাপক, বায়োকেমিস্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগ।এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ছোট্ট স্বপ্নের আহ্বায়ক ড. সুলতানা রাজিয়া এবং ছোট্ট স্বপ্নের মডারেটর নাসরিন ইসলাম ও নুজহাত তাসনিম আমিন। উক্ত শোক সভায় আলোচনা পর্বে
বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য বলেন, হাসান আজিজুল হক স্যারের মতো ব্যক্তি ছোট্ট স্বপ্নকে যে প্রত্যক্ষভাবে দিক নির্দেশনা দিতেন সেটা ছোট্ট স্বপ্ন পরিবারের জন্য অনেক বড় পাওয়া।তার শৃঙ্খলিত জীবনকে অনুসরণ করলে ছোট্ট স্বপ্ন এবং ছোট্টস্বপ্নের প্রতিটি সদস্য তার ব্যক্তি জীবনের সকল বন্ধুর পথ সহজে অতিক্রম করতে পারবে।

আলোচনায় বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মো. হাবিবুল্লাহ, হাসান আজিজুল হক স্যারের লেখনীর সহজ সাবলীলতাকে তুলে ধরেন।তিনি আরোও বলেন বিভিন্ন কঠিন বিষয়কে যেভাবে স্যার সহজভাবে তুলে ধরেছেন তা সত্যিই আশ্চর্যজনক।

এছাড়াও শোকসভায় বক্তব্য রাখেন ড. ইমতিয়াজ হাসান।তিনি শিক্ষার্থীদের হাসান আজিজুল হক স্যারের জীবন থেকে শিক্ষা নিয়ে নিজেকে স্বার্থক মানুষ হিসেবে গড়ে উঠার উৎসাহ প্রদান করেন।সেই সাথে স্যারের অনাড়ম্বর জীবন থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে তরুণ প্রজন্মকে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে ছোট্ট স্বপ্নের পক্ষ থেকে ড. ইমতিয়াজ হাসানকে একটি শোক বার্তা প্রদান করা হয়।

পরবর্তীতে ছোট্টস্বপ্নের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল হাসানের সমাপনী বক্তব্য এবং মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

পুরো অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন মোঃ ফিরোজ আহমেদ, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ।