বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ৯৮ তম জন্মদিন এবং জাতীয় শিশু দিবস উদ্যাপন

গত ১৭ মার্চ ২০১৮ বরেন্দ্র বিশ্বদ্যিালয়ের কাজলা ভবনে সকাল ১০ টায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৯৮ তম জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উদ্যাপন উপলক্ষ্যে এক বিশেষ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপদেষ্টা প্রফেসর ড. এম. সাইদুর রহমান খান এবং অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এম. ওসমান গণি তালুকদার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. নূরুল হোসেন চৌধুরী। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের কো-অর্ডিনেটর ও বিভাগীয় প্রধানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এরপর অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন কর্মের উপর আলোকপাত করে বক্তব্য প্রদান করেন। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, “জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চ এর ভাষণকে ইউনেস্কো স্বীকৃতি দিয়েছে। সমগ্র পৃথিবীতে যে ৪৪ টি ভাষণকে শ্রেষ্ঠ ভাষণ হিসাবে ধরা হয় বঙ্গবন্ধুর ভাষণ তার মধ্যে অন্যতম।  বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চ এর ভাষণে একটি দেশের পতাকার পরিবর্তন হয়েছে-- দেশ স্বাধীন হয়েছে।” উক্ত অনুষ্ঠানে প্রফেসর ড. নূরুল হোসেন চৌধুরী, উপ-উপাচার্য, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রফেসর ড. তারিক সাইফুল ইসলাম, বিভাগীয় প্রধান, অর্থনীতি বিভাগ ও ডীন, কলা ও মানবিক অনুষদ, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়- বঙ্গবন্ধুর কর্মময় জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। এছাড়াও বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও মানবাধিকার বিভাগের প্রভাষক রাবিতা রেজওয়ানা তার বক্তব্যে বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক ও সামাজিক জীবনের নানান দিক তুলে ধরেন ও একটি যুদ্ধ বিধস্ত দেশ বিনির্মানে তাঁর ভূমিকার কথা উল্লেখ করেন। আলোচনা শেষে জন্মদিনের কেক কাটা ও পথশিশুদের মাঝে খাবার বিতরণের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের পরিসমাপ্তি ঘটে।  

 

© Copyright 2021 Varendra University | Developed by IT Office, Varendra University.