বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস পালন

যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে গত ১৫ ই আগস্ট, বুধবার রাজশাহীতে অবস্থিত বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে।
এ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও অর্ধনমিতকরণ, এক মিনিট নীরবতা পালন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও তাঁর জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা করা হয়। 
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. ওসামান গণি তালুকদারের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যায়ের উপদেষ্টা প্রফেসর ড. এম সাইদুর রহমান খান। 
ড. সাইদুর রহমান খান তাঁর বক্তব্যে বলেন, যিনি একটি জাতিকে স্বাধীনতা এনে দিলেন আর সেদেশের মানুষের হাতেই তাকে প্রাণ দিতে হলো এমন নজির পৃথিবীর কোথাও নেই। অথচ বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমানকে অত্যন্ত নির্মমভাবে সপরিবারে হত্যা করা হয়। 


উপাচার্য ড. ওসামান গণি তালুকদার বলেন, বঙ্গবন্ধু হলেন একটি নক্ষত্র। গভীর সমুদ্রে নক্ষত্র যেমন নাবিকদের পথ দেখায় ঠিক তেমনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৭ মার্চের ভাষণের মধ্য দিয়ে জাতিকে স্বাধীনতার পথ দেখিয়েছিলেন। 
এছাড়াও বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম নিয়ে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ও অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. তারেক সাইফুল ইসলাম ও রেজিস্ট্রার ড. মহিউদ্দীন আহমেদ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ব্যবসা প্রশাসন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. মতিউর রহমান, সাংবাদিকতা বিভাগের কো-অর্ডিনেটর মো. মশিহুর রহমান, সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের কো-অর্ডিনেটর মো. সিদ্দিকুর রহমান ও বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ।  
এছাড়া জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত রচনা প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। 

© Copyright 2021 Varendra University | Developed by IT Office, Varendra University.